ফুটবলের মাঠে ইংরেজদের বিরুদ্ধে ভারতবাসীর লড়াইয়ের এক অজানা গল্প বলবে দেবের গোলন্দাজ

27
- Advertisement -

image source: youtube

সব খেলার সেরা বাঙালির তুমি ফুটবল গানটা আমরা সকলেই শুনেছি। এখনো এই গান সমান প্রাসঙ্গিক এবং আগামী ১০০ বছরও ফুটবল বাঙালির মধ্যে শুধু নয়, সমগ্র ভারতবাসীর মধ্যে একইরকম উন্মাদনার সঞ্চার করে যাবে সেকথা নতুন করে বলার প্রয়োজন নেই। তবে ভারতবাসীর রক্তে ফুটবল কিন্তু প্রথম থেকেই ছিলনা। বিদেশি এই খেলাকে দেশের মানুষের কাছে জনপ্রিয় করার পেছনে যার অবদান অনস্বীকার্য তিনি হলেন নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারী। তাঁকে ‘ফাদার অফ ইন্ডিয়ান ফুটবল’ নামেও ডাকা হয়। ১৮৭৭ সালে কলকাতার হেয়ার স্কুলে উৎসাহী সহপাঠীদের নিয়ে ফুটবল খেলতে শুরু করেন তিনি। তারপরে স্কুলের স্যার এবং পারিপার্শ্বিক মানুষজনের থেকে উৎসাহ পেয়ে আরো বৃহত্তর পরিসরে মেলে ধরেন নিজের প্যাশনকে।

- Advertisement -

তবে আজ হঠাৎ এই বিষয়ে কথা বলার কিছু কারণ রয়েছে। বাংলা ছবিতে বেশ কিছু বছর আগে মৌলিক গল্পের অভাব অনুভব করছিল দর্শক। সাউথের সিনেমার কপি দেখতে দেখতে হাঁফিয়ে যাওয়া বাঙালিকে স্বস্তি দিতে আবার মৌলিক গল্প ফিরছে বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে। এর ফলে মানুষ বাংলা সিনেমা দেখতে আরো বেশি আগ্রহী হবেন সেকথা বলাই বাহুল্য।

দেব এবং এসভিএফ জুটির কাজকে এর আগেও পছন্দ করেছে মানুষ। আবার তারা একসঙ্গে আসছে ‘গোলন্দাজ’ ছবির মধ্য দিয়ে। এই ছবি নিয়ে দীর্ঘদিন ব্যস্ত থেকেছেন সুপারস্টার দেব। ভারতের তারকা ফুটবলার ভাইচুং ভুটিয়ার থেকে ফুটবলের প্রশিক্ষণ নিয়েছেন দীর্ঘ সময়। গোলন্দাজ ছবিতে অভিনেতা দেবকেই দেখা যাবে নগেন্দ্রপ্রসাদ সর্বাধিকারীর চরিত্রে। ধুতি পাঞ্জাবিতে তাকে কে দেখে ইতিমধ্যেই উচ্ছসিত ফ্যানকূল। ভার্সেটাইল অভিনেতা হিসেবে এর আগেও নিজেকে একাধিকবার প্রমাণ করেছেন দেব। হার্ডকোর কমার্শিয়াল ছবি করার পাশাপাশি চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে কাজ করতে পিছপা হন না নায়ক। ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখতে পাওয়া যাবে অভিনেত্রী ইশা সাহাকেও।

কিছুদিন আগেই লঞ্চ করেছে গোলন্দাজের টিজার। ইতিমধ্যেই লক্ষাধিক মানুষ তা দেখে ফেলেছে ইউটিউবে। আগামী স্বাধীনতা দিবসে মুক্তি পাবে এই ছবি। তবে তার এত আগে টিজার লঞ্চ প্রমাণ করছে এই ছবিকে ভালোভাবে প্রমোট করে তবেই মাঠে নামবে এসভিএফ। আগামী দিনে এই ছবিকে কেন্দ্র করে ভালো ব্যবসার আশা দেখছে তারা।

টিজারে যেটুকু বোঝা যাচ্ছে তা হল স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রেক্ষাপটে ইংরেজদের বিরুদ্ধে ভারতীয়দের একটি ফুটবল ম্যাচকে কেন্দ্র করেই এই ছবির গল্প এগোবে। আমির খানের লাগান ছবিতেও এমন একটি বিষয় আমরা পেয়েছি যদিও গোলন্দাজের সঙ্গে লাগানের কোন সম্পর্ক নেই। তবে এই ধরণের গল্প বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করতে পারাটাই চ্যালেঞ্জ থাকবে নির্মাতাদের তরফে। আর দেব? তিনি তো অলরেডি চ্যালেঞ্জ নিয়েই বসে আছেন। লুক থেকে শুরু করে পোশাক আশাক সবকিছুতেই বিরাট পরিবর্তন এনেছেন। টিশার্ট জিন্স ছেড়ে ধুতি পাঞ্জাবিতে বেশ সাবলীল দেখাচ্ছে অভিনেতাকে।

ছবিটি পরিচালনা করছেন ধ্রুব ব্যানার্জি, চিত্রগ্রহণ সৌমিক হালদারের। গানের সুর ও ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক করেছেন বিক্রম ঘোষ এবং লিরিক্স লিখেছেন জনপ্রিয় কবি শ্রীজাত। ফলে গানের ওপর এক্সপেক্টেশন একটু বেশিই থাকবে স্বাভাবিক ভাবে। ছবির সেট ডিজাইনও স্বাধীনতার পূর্ববর্তী সময়কে মাথায় রেখেই করা হয়েছে।

মোটের ওপর বাংলা ছবিতে আলাদা ধরনের গল্প নিয়ে আসতে চলেছে গোলন্দাজ। সবে লঞ্চ করেছে টিজার। সামনে আসবে ট্রেলার, গান আর সিনেমা তো সেই স্বাধীনতা দিবসে। তবে আপাতত সব মিলিয়ে গোলন্দাজের টিজার বেশ একটা আগ্রহ সৃষ্টি করেছে সকলের মধ্যে সেকথা বলাই বাহুল্য। তবে বক্স অফিস কালেকশনে এই ছবি কত গোল দিতে পারে সেটা জানা যাবে সময় এলেই।

আরোও পড়ুন :