পানশালার গায়ক থেকে জনপ্রিয় খলনায়ক,অবসাদে ভুগে ৪৬ বছর বয়সেই মারা যান সৌমিত্র

283
- Advertisement -

সৌমিত্র বন্দ্যোপাধ্যায়
একসময় বাংলার মানুষদের কাছে বিনোদন মানেই ছিল টলিউডের বিভিন্ন সিনেমা।টলি পাড়ার একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রী র সুকশলী অভিনয় গেঁথে গিয়েছে দর্শকদের মনে,যা আজও অমলীন।সৌমিত্র বন্দ্যোপাধ্যায় এরকমই একজন অভিনেতা যার অভিনয় দক্ষতা আজও দর্শকদের হৃদয়ে রয়ে গিয়েছে।মূলত যে কোনো সিনেমার হিরো কে দর্শকরা মনে রাখেন, কিন্তু সৌমিত্র সিনেমার খলনায়ক হিসাবেই দর্শকদের মনের আসনে নিজের জায়গা করে নিয়েছিলেন।

- Advertisement -

সেই সময়ের অর্থাৎ ৮০-৯০ দশকের মধ্যে বাংলা সিনেমায় খলনায়কের চরিত্রে সব সময় প্রথম পছন্দ ছিলেন সৌমিত্র বন্দ্যোপাধ্যায়।তার অভিনয় জগতে আসার পথ যদিও খুব একটা মসৃন ছিল না।জীবনে অনেক কষ্ট করেই তিনি সফলতা দেখতে পেয়েছিলেন।অভিনয় জগতে নাম হওয়ার পর,পাড়াতে পাড়াতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ডাক পড়ত অভিনেতার।স্টেজে তিনি ওঠা মাত্র হইহই রব পড়ে যেত চারিদিকে।

সৌমিত্র অভিনয়ের সাথে গান করতেও ভালোবাসতেন।জীবনের প্রথম অধ্যায় নিজেকে গায়ক হিসাবেই প্রতিষ্ঠিত করতে চেয়েছিলেন তিনি,এমনকি প্রথম তিনি কলকাতাতেও এসেছিলেন গান গাওয়ার জন্যই।যারা তার গান শুনেছিলেন,সকলেই বলতেন হুবহু কিশোর কুমারের গলা ছিল তার মধ্যে।কিন্তু গায়ক হিসাবে তার সেরকম পরিচিতি আসে না, ফলে টাকা উপার্জনের জন্য বারে গান করতে থাকেন অভিনেতা।তিনি পড়াশোনা সম্পন্ন করেছিলেন ইংরাজি মিডিয়াম থেকে।শিক্ষিত ছেলের এভাবে বারে গান গাওয়া কখনোই মানতে পারেন নি তার মা-বাবা।যদিও পরবর্তীতে গানের সূূত্র থেকেই টলি পাড়ার অভিনয় জগতে প্রবেশ ঘটে তার।অভিনেতা হিসাবে তার জীবনে পরিবর্তন নিয়ে আসে ১৯৮২ সালে মুক্তি পাওয়া বাংলা ছবি ‘ত্রয়ী’।এই ছবির মূল চরিত্রেই দেখা গিয়েছিল তাকে,এছাড়াও ওই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তী ও দেবশ্রী রায়।

‘ত্রয়ী’ তে সফল অভিনয়ের পর তাকে আর ঘুরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক ছবির অফার এসেছে তার পরে।গুরুদক্ষিণা, মঙ্গলদীপ, হীরক জয়ন্তী র মতো সিনেমা গুলিতে অসাধারন অভিনয়ের মাধ্যমে দর্শকাসনে নিজের আধিপত্য বিস্তার করে নিয়েছিলেন সৌমিত্র।কিন্তু সৌমিত্র র জীবনে একটি আক্ষেপ থেকে গিয়েছিল যে তিনি কোনোদিনই ভালো চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পাননি,তিনি হয়ে উঠেছিলেন বাংলা সিনেমার খলনায়ক।

অভিনয়ের মাধ্যমে জনপ্রিয় হবার পর একসময় মদের নেশার ঝোঁক বেড়ে যায় তাঁর।বেশিরভাগ সময় অভিনয় থেকে দূরে গিয়ে মদের নেশা করে সময় কাটাতেন তিনি। এরপর তিনি বিয়ে করেন অভিনেত্রী রিতা কয়রাল কে।যদিও তাঁর বৈবাহিক জীবন সুখের হয় নি।মাত্র ৪৬ বছর বয়সে ২০০০ সালে হঠাৎই মারা যান সৌমিত্র বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরোও পড়ুন :