রামমন্দির অনুদানের ১৫ হাজার চেক বাতিল! অ্যাকাউন্টগুলিতে টাকা নেই বলে জানিয়েছে ব্যাংক


অযোধ্যার রামমন্দির নিয়ে বিতর্কের কোন অভাব নেই। প্রথম থেকেই এই মন্দির নিয়ে দেশজুড়ে বেশ শোরগোল শুরু হয়েছিল, তবে সেসবকিছুকে পর করে অবশেষে নির্মিত হচ্ছে সকলের প্রিয় রামমন্দির। এই মন্দিরের জন্য গোটা দেশ থেকে চাঁদা তোলা হয়েছিল।

- Advertisement -

রামমন্দির ট্রাস্টের বক্তব্য অনুযায়ী মন্দির নির্মাণে মত ১১০০ কোটি টাকা খরচ হবে। তবে প্রথমে দাবি করা হয়েছিল সারা দেশ থেকে যে পরিমাণ চাঁদা উঠেছে তা ১১০০ কোটি টাকার অনেক বেশি। তবে এবার জানা গেল অসংখ্য চেক ফিরিয়ে দিয়েছে ব্যাংক।

গুনে গুনে ১৫,০০০ চেক ফিরিয়ে দিয়েছে ব্যাংক। জানা গেছে সেই চেকগুলির বেশিরভাগই বাউন্স করেছে। অর্থাৎ ওই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট গুলিতে নাকি টাকাই নেই। তবে কিছু চেক এমন আছে যেগুলি সই না মেলার কারণে বা ভুল বানান লেখার কারণে বাতিল হয়েছে।

রামমন্দির ট্রাস্ট এবার ভাবছে চেকগুলো পুনরায় সংশোধন করে ফিরিয়ে আনবে। যে পরিমাণ চেক বাতিল হয়েছে তার মূল্য ২২ কোটি টাকা। বেশিরভাগ চেক নাকি খোদ অযোধ্যার। তবে এমন ঘটনায় বেশ বিব্রত মন্দির ট্রাস্ট। যদি ব্যাংকে টাকা নাই থাকে তাহলে ঐ পরিমাণের চেক দেওয়ার কি মানে?

তবে মন্দিরের কাজ এগিয়ে চলেছে জোরকদমে। খুব তাড়াতাড়ি মন্দির নির্মাণ শেষ হয়ে যাবে বলে জানা গেছে তারপরেই সাধারণ মানুষের জন্য তা খুলে দেওয়া হবে। আপাতত বাতিল হওয়া চেকগুলিকে পুনরায় ফিরিয়ে আনাই মন্দির ট্রাস্টের মূল মাথাব্যথা।

আরোও পড়ুন :