এবার অগ্নিবীরদের পাশে দাঁড়ালেন ব্যবসায়ী আনন্দ মাহিন্দ্রা


দেশজুড়ে এখন কেন্দ্রের অগ্নিপথ স্কিম কে ঘিরে উঠতে শুরু করেছে নানা প্রশ্ন। বড় অংশের মানুষ এই স্কিমের প্রতিবাদে বিক্ষোভ শুরু করেছে, সরকারি সম্পত্তির ক্ষতিসাধন হয়েছে ইতিমধ্যেই। অগ্নিবীরদের ভবিষ্যত কী? এর কোন স্পষ্ট উত্তর দিতে পারেনি কেন্দ্র।

- Advertisement -

তবে বর্তমানে এই স্কিম নিয়ে বেশ সরগরম রাজনীতি। কিন্তু এবার অগ্নিপথ স্কিমের প্রশংসা করে অগ্নিবীরদের পাশে দাঁড়ালো মাহিন্দ্রা। সোমবার সকালে আনন্দ মাহিন্দ্রা অগ্নিপথকে সমর্থন করে বলেন, “অগ্নিপথ নিয়ে আশেপাশে হওয়া ঘটনায় দুঃখিত। গত বছর যখন স্কিমটি নিয়ে কথা উঠেছিল, তখন বলেছিলাম ও আবারও বলছি, অগ্নিবীরদের শৃঙ্খলা এবং দক্ষতা তাঁদের বিশিষ্টভাবে নিয়োগযোগ্য করে তুলবে। মাহিন্দ্রা গ্রুপ এই ধরনের বিশেষ প্রশিক্ষিত, যোগ্য তরুণদের নিয়োগের এই সুযোগকে স্বাগত জানাচ্ছে।”

পাশাপাশি টাটা গোষ্ঠীর চেয়ারম্যান এন চন্দ্রশেখরন বলেছেন, “অগ্নিপথের মাধ্যমে যুবকেরা শুধুমাত্র রতিরক্ষা বাহিনীতে থেকে দেশ সেবা করার সুযোগ পাচ্ছে, তাই নয়। এরফলে টাটা গ্রুপ-সহ ইন্ডাস্ট্রির জন্য সুশৃঙ্খলিত ও প্রশিক্ষিত যুবকদেরও হাজির করবে।”

যদিও এমন মৌখিক আশ্বাসে দেশের যুব সম্প্রদায় ভরসা করতে পারছেনা। নিজেদের কেরিয়ার নিয়ে কেউ ঝুঁকি নিতে রাজি নয়। পরে যদি কোন সংস্থায় তারা কাজ না পায় তখন কী হবে? তাদের পরিবারের কী হবে? এই প্রশ্ন এখন রয়েছে সকলের মনে।

অগ্নিপথের তীব্র নিন্দা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, “এই প্রকল্প তো আর্মি ডিপার্টমেন্ট থেকে ঘোষণা হয়নি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক করেছে। অগ্নিবীর তৈরির নামে আসলে বিজেপির ক্যাডার তৈরি করা হবে। চার বছর পর চাকরি চলে গেলে তোমাদের বাড়ির লোকেরও চাকরি চলে যাবে। কিসের অগ্নিপথ? আমি কারও চাকরি খেতে দেব না।”

আরোও পড়ুন :