নিজের বয়সকে ধরে রাখুন এই কয়েকটি সহজ উপায়ে! ৪ নম্বর পয়েন্টি আপনি দেখলে অবাক হবেন

59
- Advertisement -

ছবিঃ প্রতীকী

সময় কখনই থেমে থাকেনা। মহাজাগতিক নিয়মে সময় চলতেই থাকে, পার হয় দিন, মাস, বছর এবং তার সাথে সাথে বয়স হয়ে যায় আমাদেরও। তার ছাপ পড়ে শরীরে। আমাদের ত্বক থেকে শুরু করে গোটা শরীর চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দেয় আমরা আর জোয়ান নেই, বার্ধক্যের ছাপ স্পষ্ট হয়ে ওঠে সর্বত্র যার ফলে ভারাক্রান্ত হয়ে ওঠে আমাদের মন। এভাবে বয়স বেড়ে যাওয়ার সাইড এফেক্ট গুলিকে মেনে নিতে পারেননা অনেকেই। তারা সবসময় নিজেদের বয়সকে ধরে রাখতে নানাবিধ ওষুধ খাওয়া থেকে শুরু করে মেকআপের সাহায্য নেন। আজ আমরা আপনাকে বলবো সহজ কিছু টিপস যার ফলে আপনি সহজেই আপনার বয়সকে ধরে রাখতে পারবেন।

- Advertisement -

১) ঘুমঃ ঘুম আমাদের জীবনে অতিপ্রয়োজনীয় একটি উপাদান। প্রত্যেক মানুষেরই পর্যাপ্ত ঘুমের প্রয়োজন। নিয়ম করে ৭-৮ ঘন্টা ঘুমোতেই হবে। কিন্তু বয়স বাড়ার সাথে সাথেই বাড়ে নানারকম দায়ীত্ব, দুশ্চিন্তা যার ফলে ঘুমের সময় কমে যায় আর, ঘুম কম হলেই চোখে মুখে তার ছাপ পড়ে। চোখের তলায় কালি পড়ে যায়। এছাড়াও ত্বক কুঁচকে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা যায়। ঘুম ভালো না হলেই অ্যাংসাইটি বাড়ে। সেই সঙ্গে মনের উপরেও কিন্তু চাপ পড়ে।

২) ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করুনঃ দূর্গাপুজো চলে গিয়ে কালীপুজো আসতে চলেছে আর সেই সঙ্গে আসতে চলেছে শীত তা আর বলার অপেক্ষা থাকেনা। আর শীতকাল মানেই ত্বকের সমস্যা। ত্বক রুক্ষ হয়ে যায় সহজেই। ফলে শীতকালে অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে ময়শ্চারাইজার। কিন্তু সমস্যা হল, শীতকাল ছাড়া অনেকেই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন না। নিয়মিত ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করলে উপকার পাওয়া যায়। এতে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকে। সেই সঙ্গে ত্বক অনেক বেশি ফ্রেশ লাগে। এজিং রুখতে ভালো কাজ করে ময়েশ্চারাইজার।

৩) স্বাস্থ্যকর খাবার খানঃ খাদ্যাভাস আপনার বয়সকে ধরে রাখতে অনেক সাহায্য করে। কিন্তু লোভের বশবর্তী হয়ে প্রায়ই পিতজা, বার্গার, ফুচকা, চাউমিন, বিরিয়ানি খেয়ে গেলে আর বয়সের ছাপকে দূরে রাখা সম্ভব হবেনা। দীর্ঘদিন ধরে জাঁক ফুড অতিরিক্ত পরিমাণে খেয়ে গেলে আপনার হজমের সমস্যা হবে পাশাপাশি পেটের সমস্যাও দেখা দেবে ফলে চুল পেকে যাবে এবং মুখেও তার ছাপ পড়বে। সুতরাং সঠিক খ্যাদ্যাভাস জরুরী।

৪) সানস্ক্রিন ব্যবহার করুনঃ শুধু গরমেই সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হয় এই ধারণা ভুল। রোদে বেরোলেই সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। এমনকি বাড়ির মহিলারা রান্না করার সময়ও হাতে এবং মুখে সানস্ক্রিন মাখুন ফলে আপনার ত্বকে রান্নার গরম ঝাঁঝ প্রভাব ফেলতে পারবেনা এবং এর ফলে চামড়ায় ট্যানও পড়বেনা এবং আপনি নিজেকে অ্যান্টি এজিং রাখতে পারবেন।

আরোও পড়ুন :