মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আবার আক্রমণ দিলীপ ঘোষের, জানুন বিস্তারিত

94
- Advertisement -

Image Source : Google

২০২১ এর ভোটের আগেই পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফা দেওয়ার ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই বাড়তি অক্সিজেন পেয়ে গেছে বিজেপি। এমন একটা সুবর্ণ সুযোগ কেউই চায়না হাতছাড়া করতে। শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে বহুদিন ধরেই জল্পনা চলছিল রাজ্য রাজনীতিতে। এখনও তিনি তৃণমূলে আছেন ঠিকই তবে কতদিন আর থাকবেন সেটাই প্রশ্ন।

- Advertisement -

অন্যদিকে বিজেপি এখন বেজায় খুশি। সম্প্রতি নিউটাউনের ইকোপার্কে মর্নিং ওয়াকে গিয়ে তিনি বলেন, “এখন তিনি তৃণমূলে আছেন ঠিকই, তবে দেখার বিষয় আগামী দিনে কি হয়। তবে আমার সাথে কোনও কথা হয়নি তার।” সেইসঙ্গে যোগ করেন,”মুখ্যমন্ত্রী এখনও কেবল প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। নির্বাচনের আগে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন তিনি। ১০ বছর আগে এসব করলে আজ আর এই অবস্থা দেখতে হত না। এভাবে সবাই দল ছেড়ে চলে যেত না। যে পার্টির বিধায়ক ছেড়ে চলে যায়, সাংসদ ছেড়ে চলে যায়, সেই দলের আবার কিছু আছে নাকি! আর কিছুদিন পরে দেখবেন দল টাই থাকবেনা। আমরা আগেই বলেছিলাম অনেকে জয়েন করবে। এখন দেখুন।”

এতটুকুতে শান্ত হননি দিলীপ ঘোষ। এরপরে তিনি যোগ করেন, “বিধায়ক- সাংসদ অনেকেই আছেন। কিছু মাসের মধ্যে আরও অনেক কিছু ঘটবে। ওদের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট পুরো ফেল। তবে দলের ডিজাস্টার ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। এই সব নিয়ে দিদিমণি খুবই ব্যস্ত রয়েছেন। এখন রোজই বৈঠক হবে। ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের জন্য। প্রতি সপ্তাহে হবে। দিনে দিনে হবে বৈঠক। দফতরগুলি ওনার হাতে আছে ঠিকই, শুধু হাতে নেই দলটা।”

আরোও পড়ুন :