বীভৎসভাবে ফেঁসে গেছেন! স্বীকার করে নিলেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়


SSC দুর্নীতি মামলায় নাম জড়িয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তার বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নাম। দুজনেই রয়েছেন জেল হেফাজতে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে রাখা হয়েছে প্রেসিডেন্সি জেলে এবং অর্পিতাকে রাখা হয়েছে আলিপুর মহিলা জেলে।

- Advertisement -

জেলে ভেঙে পড়েছেন অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। এর আগেও তিনি সাংবাদিকদের সামনে ভেঙে পড়েছেন একাধিকবার, হাউমাউ করে কাঁদতে দেখা গেছে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর বান্ধবীকে। জেলে বারবার মায়ের খোঁজ নিচ্ছেন অর্পিতা।

অর্পিতার প্রাণ সংশয় রয়েছে বলে দাবি করেছিল ইডির আইনজীবী। তারপর থেকে বিশেষ নজরে রাখা হয়েছে অর্পিতাকে। তার সেলে বন্দির সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়েছে, সিসিটিভি ক্যামেরায় সারাক্ষন নজর রাখা হয়েছে অর্পিতার ওপর।

জেলে অর্পিতা স্বীকার করেছেন তিনি বীভৎস ভাবে ফেঁসে গেছেন। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সাথে ঘনিষ্ঠতার কারণে ইডির নজর এখন অর্পিতার ওপরে। তার মুখ থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ন তথ্য উদ্ধার করতে পেরেছে তদন্তকারীরা। আগামী দিনে তদন্তে অর্পিতার আরো সাহায্য চায় ইডি।

অন্যদিকে পার্থ চট্টোপাধ্যায় রয়েছেন প্রেসিডেন্সি জেলে। সাধারণ বন্দির মতই রুটি, ডাল, সবজি, চা, বিস্কুট খাচ্ছেন তিনি। রাজনীতিতে আসার জন্যই আজ জীবনে এই দিন দেখতে হচ্ছে বলে কারাগারে জানিয়েছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। মনে মনে তিনি আফসোস করছেন রাজনীতিতে আসার জন্য।

আরোও পড়ুন :